Connect with us

খেলা

দীর্ঘ সময়ের ব্যবধানে ২০২৩ সালের অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হবে ভারতের মাটিতে

Published

on

নয়াদিল্লি: বিশ্বের সবথেকে বড় এবং প্রাচীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অলিম্পিকের আয়োজন করতে চলেছে ভারত। আগামী ২০২৩ সালে অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হবে ভারতের মাটিতে। সুদীর্ঘ চারদশক আগে ভারত অলিম্পিক প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিল। ফের ২০২৩ সালে ওই বড় মাপের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হতে চলেছে ভারতের মাটিতে। করোনার কারণে ২০২০ সালে অলিম্পিক স্থগিত হয়ে গিয়েছিল। বহু প্রতীক্ষার পরে তা ২০২১ সালে তা অনুষ্ঠিত হয়।

অলিম্পিক কমিটির সদস্য নীতা আম্বানী বলেছেন, “ভারতের পরবর্তী প্রজন্ম প্রচুর আশা নিয়ে রয়েছে। ভবিষ্যতে আরও অলিম্পিক গেমস আয়োজন করা আমাদের আকাঙ্খা।। ভারতে 2023 সালের অলিম্পিক একটি অনুঘটক হবে যা এই উচ্চাকাঙ্ক্ষাকে কার্যকর করবে।”

আগামী অলিম্পিক প্রতিযোগিতার আসর বসবে ভারতের মাটিতে। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির পক্ষ থেকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই খুশির জোয়ারে ভাসছে সমগ্র দেশ। যা প্রতিফলিত হয়েছে প্রধানমন্ত্রী মোদীর মুখেও। বেজায় খুশি প্রধানমন্ত্রী।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে লেখা হয়েছে যে এটা আনন্দের বিষয় যে ভারতকে 2023 সালের আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির অধিবেশনের আয়োজক হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। আমি নিশ্চিত যে এটি একটি স্মরণীয় পররতিযোগিতা হবে এবং বিশ্ব ক্রীড়ার জন্য ইতিবাচক ফলাফলের দিকে নিয়ে যাবে।

খেলা

২২ গজের বিশ্বযুদ্ধে পাক বধ ভারতীয় মহিলাদের

Published

on

By

Team India

নয়াদিল্লি: গত বছর অক্টোবর মাসে ২০ ওভারের বিশ্বকাপে ভারতকে হারিয়েছিল পাকিস্তান। যা ছিল বিশ্বকাপের ইতিহাসে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের প্রথম পরাজয়। যা নিয়ে তীব্র সমালচনা শুরু হয়েছিল বিরাট কোহলির ভারতের। পাঁচ মাস পরে সেই হারের বদলা নিল ভারতের মহিলা ক্রিকেট দল।

মহিলাদের ওয়ান ডে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই পাকিস্তানকে হারাল ভারত। ভারতের জয়ের প্রধান কারিগর পূজা এবং স্নেহ রানা। দু জনে ১২২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। পাশাপাশি দলের জয়ে বড় অবদান রাখলেন স্মৃতি মন্ধনা ও রাজেশ্বরী গায়েক। স্মৃতি ব্যাট হাতে তুললেন ৫২ রান। বল হাতে ৩১ রানেই ৪ উইকেট নিলেন রাজেশ্বরী। পাকিস্তানকে ১০৭ রানে হারাল ভারত। সেই সঙ্গে প্রথম ম্যাচেই মিতালি রাজ, ঝুলন গোস্বামীরা প্রমাণ করে দিলেন তাঁরাও ট্রফি জয়ের অন্যতম দাবিদার।

প্রথমে রান করে ভারতের ঝুলিতে আসে ২৪৪/৭ জবাবে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৩৭ রানে গুটিয়ে যায় পাকিস্তানের ইনিংস। এই ম্যাচে অনবদ্য এক রেকর্ড গড়লেন বাংলার ক্রিকেটর রিচা ঘোষ। ১৮ বছরের রিচাই এটাই ছিল প্রথম ম্যাচ। সেই ম্যাচেই ৫টি শিকার ধরলেন রিচা। বিশ্বকাপে অভিষেক ম্যাচে এটিই কোনও উইকেট কিপারের সর্বোচ্চ সংখ্যক শিকার।

ব্যাট হাতে ভারতকে উদ্ধার করেন পূজা ও স্নেহ। একটা সময়ে ১১৪ রানের মধ্যে ৬ উইকেট হারিয়ে বসেছিল ভারত। সেখান থেকে সপ্তম উইকেটে মাত্র ১৯৭ বলে ১২২ রানের ঝোড়ো পার্টনারশিপ গড়েন দু-জনে। পূজা ৫৯ বলে ৫৭ রান তোলেন। তাঁর ইনিংসে ছিল ৮টি বাউন্ডারি। ভারতীয় ইনিংসের শেষ ওভারে ফতিমা সানার বলে তিনি ফিরলেও টলানো যায়নি স্নেহকে। শেষ পর্যন্ত ৪৮ বলে ৫৩ রান করে অপরাজিত থাকেন স্নেহ।

ভারত শুরুতেই শেফালি বর্মার (০) উইকেট হারালেও স্মৃতি (৫২) এবং দীপ্তি শর্মা (৫৭ বলে ৪০ রান) ইনিংসের হাল ধরেন। তবে এর পর মাত্র ১৮ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল ভারত। সেখান থেকে পুজা ও স্নেহ মিলিয়ে ভারতীয় ইনিংসকে লড়াই করার মতো জায়গায় পৌঁছে দেন। পাকিস্তান এই নিয়ে বিশ্বকাপে টানা ১৫ ম্যাচ হারল।

Continue Reading

খেলা

প্রয়াত কিংবদন্তী ক্রিকেটার শেন ওয়ার্ন

Published

on

By

Shane Warne

ক্যানবেরা: বড় নক্ষত্র পতন ক্রিকেট দুনিয়ার। শেষ নিঃশ্বাসত্যাগ করলেন কিংবদন্তী ক্রিকেটার শেন ওয়ার্ন। ভারতীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি পরলোকে গমন করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ৫৩ বছর। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন যে হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে আচমকা তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন।

অস্টড়েলিয়ার ভিক্টোরিয়ার ফার্নট্রি গুল্লি এলাকায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন এই বিখ্যাত ও সাবেক অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার। তাঁকে ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বকালের অন্যতম সেরা বোলার বিবেচনা করা হয়ে থাকে। ওয়ার্ন ১৯৯৪ সালে উইজডেন ক্রিকেটার্স অ্যালম্যানাক-এ বর্ষসেরা উইজডেন ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছিলেন।

ওয়ার্ন একজন জেনুইন লেগ স্পিনার ছিলেন, সাথে লোয়ার অর্ডারে কার্যকরী ব্যাটিং করতেন। ২০০০-২০০৭ ক্রিকেট বিশ্বে অস্ট্রেলিয়ার আধিপত্যের অন্যতম কারিগর ছিলেন তিনি। ২০১৩ সালে, ওয়ার্নকে আইসিসি ক্রিকেট হল অফ ফেমে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। তাঁর ছোঁড়া বল এখনও শতাব্দীর সেরা বলে বিবেচিত। ১৯৯৩ সালে মাইক গ্যাটিংকে আউট করা তার বলটিকে গত শতাব্দীর সেরা বল বলা হয়।

২০০৮ সালে যখন ভারতে এইপিএল শুরু হল সেই সময়ে শেন অয়ার্ন ছিলেন রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়ক। অতি সাধারণ একটি দল ছিল রাজস্থানের। শেন ওয়ার্নের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে ওই দলটিই প্রথমবার চ্যাম্পিয়ান হয়ে নজর কেড়েছিল। যার নেপথ্যে ছিলেন অধিনায়ক শেন ওয়ার্ন। ২০০০ সালে শতাব্দীর সেরা অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ড দলেও তাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ২০০৭ সালে এই মাঠে ওয়ার্ন ক্রিকেট জীবনে অবসর নেন

তিন ধরণের ক্রিকেটে সাফল্য থাকলেও বিতর্কও কিছু কম নেই এই বিশিষ্ট ক্রিকেটারের জীবনে। ২০০৩ সালের বিশ্বকাপের আগে তার ক্রিকেট খেলার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়। বিশ্বকাপের আগে তার ডোপ টেস্টে ফল পজিটিভ আসে, ২০০৪ সালে তিনি ক্রিকেটে ফিরেন, অস্ট্রেলিয়ার আর ওয়ানডে না খেললেও টেস্ট খেলে যান।

এছাড়াও শেন ওয়ার্নের যৌন জীবন নিয়েও অনেক বিতর্ক আছে। বিয়ের পরেও বহু মহিলার সঙ্গে তাঁর যৌন সম্পর্ক ছিল। যা নিয়ে অনেক বিতর্ক হয়েছে। এই ক্রিকেটারের মাত্রাতিরিক্ত যৌন চাহিদা পূরণে অপারক ছিলেন বলে সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছিলেন তাঁর স্ত্রী। যৌন কেচ্ছা ফাঁস হওয়ার পরেও মাঠে সাবলীল দেখা গিয়েছিল ওয়ার্নকে। বছর তিনেক আগে ক্রিকেট থেকে অবসরের পরে একই বিছানায় চার মহিলার সঙ্গে শেন ওয়ার্নের যৌনতায় লিপ্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে এসেছিল।

Continue Reading

উত্তর-পূর্ব

মোটর রেসিং ট্র্যাক পাচ্ছে মিজোরাম, উত্তর-পূর্ব ভারতে এই প্রথম

Published

on

By

আগরতলা: উত্তর-পূর্ব ভারতের জন্য সুখবর। শীঘ্রই মিজোরাম পেতে চলেছে মোটর রেসিং ট্র্যাক, আর পূর্ব এবং উত্তর-পূর্ব ভারতে এই প্রথম ঘটতে চলেছে এমন ঘটনা বলে জানান ক্রীড়া মন্ত্রী রবার্ট রোমাভিয়া রায়ট।

তিনি জানান যে, মিজোরাম স্টেট স্পোর্টস কাউন্সিল এবং রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন আরইসি লিমিটেড আইজলের কাছে মোটর রেসিং ট্র্যাক এবং স্পোর্টস কমপ্লেক্স নির্মাণের জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এটি আইজল থেকে প্রায় ৩১ কিলোমিটার উত্তরে লেংপুইতে তৈরি করা হবে যেখানে একটি বিমানবন্দরও রয়েছে। পাশাপাশি তিনি আরও বলেন যে এই প্রকল্পটিতে ব্যয় হবে ১০ কোটি টাকা।

রায়ট বলেন যে, এই ধরনের রেসিং ট্র্যাক উত্তর-পূর্ব, এমনকি পূর্ব ভারতে এই প্রথম নির্মাণ হতে চলেছে। তিনি বলেন এই প্রকল্পটি যথা সময়ে সম্পন্ন করার জন্য এমএসএসসি ব্যাপক ভাবে প্রচেষ্টা চালাবে।

Continue Reading

Trending