Connect with us

বিশ্ব

শক্তিশালী ইউনিসের দাপটে লন্ডভন্ড ব্রিটেন, মৃত কমপক্ষে ১০, বন্যার আশঙ্কা, প্রস্তুত সেনাবাহিনী

Published

on

লন্ডন: প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে বিপর্যস্ত ইংল্যান্ড। ঝড়ের তান্ডবে উড়ে গিয়েছে একের পর এক বাড়ির ছাদ। ঘণ্টায় ২০০ কিমি বেগে প্রবল হাওয়ার দাপটে গুঁড়িয়ে গিয়েছে গাড়ি, উপড়ে গিয়েছে সারি সারি গাছ। ঝড়ে এখনও অবধি ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। ইউনিস-এর মতন বিধ্বংসী ঝড় সাম্প্রতিক সময়ে ইংল্যান্ডে এই প্রথম, এমনটাই জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। অনেকে বলছেন, এমন ঝড় ইংল্যাণ্ডে এই প্রথমবার। শক্তিশালী ইউনিসের দাপটে লন্ডভন্ড হয়েছে ব্রিটেন।

ব্রিটেনে গত কয়েক দশকের ইতিহাসে সবচেয়ে শক্তিশালী এক ঝড় শুক্রবার সকাল থেকে আঘাত হানতে শুরু করলে লাখ লাখ মানুষকে তাদের ঘরে অবস্থান করতে বলা হয়েছে। অনেক জায়গাতেই ট্রেন ও ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে শত শত স্কুল। লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দরে কমপক্ষে ৬৫টি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। ব্রিটিশ সরকার বলছে, পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ইউনিসের আঘাতে আয়ারল্যান্ডে ৫৫ হাজারেরও বেশি বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

ব্রিটেনে এক সপ্তাহের মধ্যে এটি দ্বিতীয় ঝড়। এর আগে ডাডলি ঝড়ের আঘাতে স্কটল্যান্ড, উত্তর ইংল্যান্ড এবং উত্তর আয়ারল্যান্ডে বহু বাড়ি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। উপড়ে গেছে বহু গাছপালা। আবহাওয়া অফিস বলছে, শুক্রবারের ঝড় ইউনিস ডাডলির তীব্রতাকেও ছাড়িয়ে যাবে এবং এটি হবে গত তিন দশকের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ১৯৯০ সালের জানুয়ারি মাসের ঝড়ে যেরকম ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল এবারেও সেরকম হতে পারে। ৩২ বছর আগের ওই ঝড়ে ৪৭ জন নিহত এবং আরো ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল।

ঝড় ইউনিসের তীব্রতা এতো বেশি যে উপকূলীয় এলাকাগুলোর পাশাপাশি রাজধানী লন্ডনেও সর্বোচ্চ সতর্কতা বা রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। বলা হচ্ছে এই ঝড়ের কম বেশি প্রভাব পড়বে সারা দেশে। শুধু তাই নয়, বাতাসে বিভিন্ন জিনিস উড়ে গিয়ে সেসব প্রাণহানিরও কারণ হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ঝড় ইউনিসের কারণে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াও, যানবাহন চলাচলে বিশৃঙ্খলা এবং উপকূলীয় এলাকায় বড় ধরনের বন্যা হতে পারে।

ঝড় ইউনিস মোকাবেলার জন্য প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের নেতৃত্বে কোবরা কমিটি জরুরি বৈঠকে বসেছে। এর পরই প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন যে দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে সেনাবাহিনীকে। ওয়েলসে রেল চলাচল বাতিল করা হয়েছে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বড় বড় কয়েকটি সেতু এবং বহু ফ্লাইটও বাতিল করা হয়েছে। একারণে সম্ভব হলে যাত্রীদের এসব পরিহার করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার লিভারপুলে ঝড়ের তাণ্ডবে গাড়ি উল্টে মৃত্যু হয়েছে এক প্রৌঢ়ের। আয়ারল্যান্ডে গাছ ভেঙে পড়ে ৬০ বছর বয়সি এক বৃদ্ধার উপর। ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। ঝড়ের বেগে লন্ডনের ও-টু অ্যারিনা স্টেডিয়ামের ছাদ উড়ে গিয়েছে। একের পর এক বাড়ি তছনছ হয়ে গিয়েছে। বিধ্বস্ত পরিবহণ ব্যবস্থাও। নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একাধিক ভিডিয়ো ক্লিপে দেখা যাচ্ছে লিভারপুল, কর্নওয়াল, আয়ারল্যান্ড ইত্যাদি জায়গার করুণ ছবি। লন্ডন এবং দক্ষিণ ইংল্যান্ডের একাধিক জায়গায় বিদ্যুৎ পরিষেবা নেই। পরিষেবা সচল রাখা এবং উদ্ধারকাজে কাজ করে চলেছে প্রশাসন। ঝড়ের জন্য একের পর এক বিমান বাতিল করা হয়েছে। লন্ডনের গুরুত্বপূর্ণ বিমান বন্দরগুলিতে সব মিলিয়ে দু’লক্ষ মানুষ আটকে পড়েন।

শত শত স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কোথাও না যাওয়ারও পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সমুদ্র উপকূল থেকে লোকজনকে দূরে থাকতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও আবহাওয়া অফিস থেকে যেসব সতর্কতা জারি করা হয়েছে সেগুলো গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়ার জন্য জনগণের প্রতি আহবান জানানো হয়েছে।

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশ্ব

নয়া চালে বাজিমাত ইমরানের

Published

on

By

Imran

ইসলামাবাদ: শেষ মুহূর্তে মোক্ষম চাল দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। শেষ বলে ছয় মেরে ম্যাচ জেতানোর মতোই টানটান উত্তেজনার মাঝে ধরে রাখলেন ক্ষমতা। আপাতত বাঁচিয়ে নিলেন নিজের প্রধানমন্ত্রীর কুরসি। তবে শীঘ্রই নির্বাচনের প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি।

রবিবার সকালে আস্থা ভোট হওয়ার কথা হিল পাকিস্তানের জাতীয় আইনসভায়। এদিন সকাল থেকে পাকিস্তানে একের পর এক নাটক চলছিল। এই আস্থাভোটকে কেন্দ্র করে সে দেশের একাধিক এলাকায় অশান্তি চলছিল। অশান্তির রুখতে ইসলামাবাদে জারি হয়েছিল ১৪৪ ধারা। শোনা গিয়েছিল, গ্রেপ্তার হতে পারেন ইমরান খান। এর মাঝেই বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ পাক সংসদে অধিবেশন শুরু হয়।

অধিবেশনের শুরুতেই নাটকের নতুন অঙ্ক রচিত হয়। দেখা যায় বিরোধীরা ইমরানের আগে সংসদের ডেপুটি স্পিকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে। এর পরই ইমরানের বিরুদ্ধেও অনাস্থা প্রস্তাব আনা হয়। সেই সময় সংসদে ইমরানের দলের মোটে ২২ জন প্রতিনিধি উপস্থিত। হাজির ছিলেন না ইমরানও।

পাকিস্তানের সংসদে তাঁর বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে দিয়েছিলেন ডেপুটি স্পিকার মহম্মদ কাসিম খান সুরি। এই উপায়ে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে আসা সংবিধানের পরিপন্থী বলেও মন্তব্য করেন ডেপুটি স্পিকার।

এরপরেই জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। জানিয়ে দিলেন, রাষ্ট্রপতির কাছে সংসদ ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করবেন তিনি। একইসঙ্গে দ্রুত নির্বাচনের প্রস্তাবও দেন। অনাস্থা প্রস্তাব পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিদেশি শক্তির ষড়যন্ত্র বলেও দাবি করেছেন ইমরান।

Continue Reading

বিশ্ব

সক্ষমতা নেই ইমরানের, দাবি প্রাক্তন স্ত্রী রেহামের

Published

on

By

Imran Reham

ইসলামাবাদ: খুব বড় কোনও অঘটন না ঘটলে রবিবারই ক্ষমতা হারাতে চলেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সংখ্যা গরিষ্ঠতা হারাচ্ছেন তিনি। তবে আস্থা ভোটে লড়াই করবেন। এই অবস্থায় কড়া ট্যুইট করলেন তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী রেহাম খান। তিনি টুইটে লিখেছেন ইমরানের সক্ষমতা নেই!

বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন ইমরান খান। ভাষণে তিনি বলেন, আল্লাহর কৃপায় আমার কিছুর প্রয়োজন নেই কারণ জীবনের সবকিছু- খ্যাতি, সম্পদ ইত্যাদি অর্জন করেছি। এরপর শুক্রবার ইমরান খানকে একহাত নিলেন তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী রেহাম খান। রেহাম খান বলেন, ‘ইমরান দেশের যে জগাখিচুড়ি করেছেন তা পরিষ্কার করতে জনগণকে একসঙ্গে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার দিকে মনোনিবেশ করা উচিত।’

রেহাম খান বলেন, ‘ইমরান খানের যা নেই তা হলো বুদ্ধিমত্তা ও সক্ষমতা।’ জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে ইমরান খান বলেন, ছোটবেলায় তিনি পাকিস্তানকে শীর্ষে উঠতে দেখেছেন। এ কথার সঙ্গে একমত হয়ে রেহাম বলেন, আপনি যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন না তখন পাকিস্তান দুর্দান্ত ছিল।

Continue Reading

বিশ্ব

অনর্থ হয়ে যাবে, বিরোধী জোটকে হুমকি ইমরানের

Published

on

By

Imran

ইসলামাবাদ: ক্ষমতা হারানো প্রায় নিশ্চিত ইমরান খানের। তিনি সংখ্যা গরিষ্ঠতা দেখাতে পারবেন না, এমনই দাবি পাক সংবাদ মাধ্যমের। এমন পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বিরোধী জোটকে হুমকি দিলেন।

বৃহস্পতিবার পাক প্রধানত বলেছিলেন স্বাধীন বিদেশ নীতি অনুসরণ করার জন্য তাঁকে মূল্য চোকাতে হচ্ছে। শুক্রবার তিনি বলেন, যদি অনাস্থা প্রস্তাব সফল না হয় তাহলে ভয়াবহ পরিণতি হবে।

ইসলামাবাদে নিরাপত্তার ইস্যুতে ইমরান খান জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার সময় দাবি করেন, বিদেশি একটি রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে তার সরকার একটি ‘হুমকির চিঠি’ পেয়েছে। এসময় তিনি মুখ ফসকে এই ষড়যন্ত্রের নেপথ্যে থাকা দেশ হিসেবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাম বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর এই দাবি নিয়ে পাকিস্তানে শোরগোল পড়ে যায়। বিরোধী জোট ইস্যুটি নিয়ে সরকারকে আক্রমণ করতে থাকে। ক্রমাগত আক্রমণে জর্জরিত ইমরান খান বলেন,তিনি এখন ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য লড়ছেন। বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাবের পেছনে বিদেশি ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী।

আগামী পরিস্থিতি নিয়ে পাকিস্তানের সেনা ও গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে একের পর বৈঠক করছেন। ইমরান খান বলেছেন, তিনি শেষ বল পর্যন্ত খেলবেন। তবে জোট সরকার থেকে শরিক দলের সরে যাওয়ায় তার প্রধানমন্ত্রী থাকার আর কোনও সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। রবিবার ৩ এপ্রিল ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা ভোট হওয়ার কথা রয়েছে। সেদিকেই এখন তাকিয়ে সবপক্ষ।

Continue Reading

Trending